অতি চালাকের গলায় দড়ি

একদা একটি গাধা লবনের ভারী বোঝা বয়ে নিয়ে যাবার সময় নদী পার হতে গিয়ে হোঁচট খেয়ে পানিতে বসে পড়েছিল ।পানির সংস্পর্শে এসে লবন গুলে একেবারে জল হয়ে গেল । উঠে দাঁড়িয়ে গাধা দেখে বোঝা একদম হালকা হয়ে গেছে ।সে তো মহাখুশী ।ভাবল বিরাট এক আবিষ্কার করে ফেলেছে সে । নদী পার হতে গিয়ে পানিতে বসে পড়লেই যে বোঝা হালকা হয়ে যায় এ কথা তার আগা জানা ছিল না ।

কিছুদিন পরের
ঘটনা ।সেই গাধাটির পিঠেই তুলার বোঝা ।ক্লান্ত গাধা নদী দেখেই থুশি হয়ে উঠল ।চালাকি করে নদী পার হতে গিয়ে সে হোঁচট খাওয়ার ভান
করে পানিতে বসে পড়ল । কিন্তু একি ? উঠে দাঁড়াতে পারছে না কেন সে ? শুকনো বোঝা তো এমন ভারী ছিল না ? ক্রমে মাথাটিও আর উঁচু
করে রাখতে না পেরে ডুবে মরে গেল গাধা । সে কি জানত লবনের বোঝা পানিতে ভিজে হালকা হয়ে যায় অথচ তুলার বোঝা ভিজে হয়ে যায়
আরো ভারী ?

নীতিকথা : মাঝে মাঝে বুদ্ধির অহংকারে চালাকি করতে গিয়ে ভাগ্য এমন বিড়ম্বনা ঘটায় যা মানুষ স্বপ্নেও
ভাবতে পারে না ।

You may also like...

Skip to toolbar