মেহমানের মর্যাদা পেলো যুদ্ধবন্দীরা

বদর যুদ্ধে বিজয়ী মুসলমানদের হাতে অনেক কুরাইশ বন্দী হলো।

এরা সেই তারা, যারা মহানবী(সাঃ) এবং তাঁর অনুসারীদের উপর তের বছর

ধরে অমানুষিক অত্যাচার করেছে এবং তাঁদেরকে দেশ ছাড়তে বাধ্য করেছে।

সেই যুগের নীতি অনুসারে হয় তাদের সকলকে হত্যা

অথবা তাদেরকে দাস বানিয়ে নেয়া যেত। কিন্তু মহানবী(সাঃ) তাদের সাথে সম্পূর্ণ

ব্যতিক্রমধর্মী ব্যবহার করলেন।

তিনি তাদের সাথে মেহমানের মত ব্যবহার করতে নির্দেশ দিলেন।

মুসলমানদের নিজেদের খাওয়ার ব্যাপারে কষ্ট হলেও বন্দীদের ভাল

ও পেট পুরে খাবার দেয়া হতো। মুসলমানরা দু’চারটা

খেজুর খেয়ে দিন কাটাতেন, কিন্তু বন্দীদের রুটি খাওয়ানো হতো।

বন্দীদের একজন পরবর্তীকালে বলেছেন, “মদিনাবাসিদের উপর শান্তি বর্ষিত হোক।

ওরা আমাদের ঘোড়ায় চড়িয়ে নিজেরা পায়ে হেঁটে পথ চলেছে।

তারা প্রায় না খেয়ে আমাদের খাওয়াত।”

You may also like...

Skip to toolbar