যে খাদ্য বরকতপূর্ণ

মদীনার খাজরাজ গোত্রের পল্লী।

বনু নাজ্জারদের একটি বাড়ী।

আনাস (রা) ইবনে মালিকের সৎ-পিতা আবু তালহা আনাসের মাকে এসে বললেন, ‘আল্লাহর রাসূল (সা) আজ অভুক্ত আছেন।

কিছু খাদ্যের ব্যবস্থা কর। সঙ্গে সঙ্গেই উম্মে সুলাইম আনাসকে পাঠালেন।

আনাস পৌঁছলেন।

মহানবী (সা) তখন মসজিদে নব্বীতে বসেছিলেন।

আনাসকে দেখেই আল্লাহর রাসূল (রা) তাকে জিজ্ঞাসা করলেন, ‘আবু তালহা তোমাকে পাঠিয়েছেন?’

‘জি আল্লাহর রাসূল!’ বলল আনাস।

‘খাওয়ার জন্যে?’ আবার জিজ্ঞাসা করলেন মহানবী (সা)।

‘জি, হ্যাঁ’, উত্তর দিল আনাস।

মহানবী (সা) উপস্থিত সাহাবীদের নিয়ে উঠে দাঁড়ালেন এবং সকলকে নিয়ে এলেন খুশী হলেন আবু তালহা।

কিন্তু ভীষণ চিন্তায় পড়লেন তিনি।

যেটুকু খাবারর আছে, এত মানুষেরে কুলোবে না।

উম্মে সুলাইমের (রা) মধ্যে কিন্তু চিন্তার লেশমাত্র নেই।

তিনি স্বামীকে সান্ত¡না দিয়ে বললেন, ‘এটুকু খাদ্য এত লোকের কিভাবে হবে, সেটা আল্লাহ এবং আল্লাহর রাসূল ভালো বুঝেন।’

যতটুকু খাবার ছিল তা মহানবী (সা)-এর কাছে পেশ করা হলো।

সেটুকু খাদ্য এতটাই বরকত পূর্ণ হলো যে, মহানবী এবং উপস্থিত সাহাবীর সবাই পেট পুরে খেলেন।

You may also like...

Skip to toolbar