রাসুলুল্লাহ (সা) কদাচিৎ দুবেলা পেট ভরে আহার করতে পেরেছেন

রাসুলুল্লাহ(সাঃ) ইন্তিকালের পর একদিন এক ভিখারিনী

তার দুই সন্তানসহ হযরত আয়িশার(রাঃ) নিকট এসে কিছু খাবার প্রার্থনা করলো।

এ সময় হযরত আয়িশার(রাঃ) নিকট মাত্র তিনটি খেজুর ছিল।

তিনি এই ভিখারিনী এবং দুই সন্তাঙ্কে তিনটি খেজুর প্রদান করলেন।

মহিলা দুটি খেজুর তার দুই সন্তানকে দিল এবং নিজের জন্য অপরটি রেখে দিল।

শিশুদ্বয় দুটি খেজুর খাওয়ার পর তাদের মায়ের দিকে তাকাল।

মা তাদের চাহনির অর্থ বুঝতে পারলো।

নিজের জন্য রাখা অপর খেজুরটি অতঃপর দু’ভাগ করে দুই সন্তানকে দিল।

নিজের জন্য কিছুই রইলো না।

মাতৃস্নেহের এই দৃশ্য আয়িশা সিদ্দিকার(রাঃ) হৃদয় স্পর্শ করলো।

তিনি কেঁদে ফেললেন।

একদিন আয়িশা সিদ্দিকা(রাঃ) খেতে বসে কেঁদে ফেললেন।

তখন রাসুলুল্লাহ(সাঃ) অবশ্য জীবিত নেই।

তিনি বললেন, ‘আমি যখন ভরা পেটে খাই, তখন অশ্রু সংবরণ করতে পারি না।

’ পার্শে দণ্ডায়মান এক মহিলা এর কারণ কি জিজ্ঞাসা করলেন।

জবাবে আয়িশা(রাঃ) বললেন, ‘রাসুলুল্লাহর(সাঃ) কথা আমার মনে পড়ে।

রাসুলুল্লাহ(সাঃ) জীবিতাবস্থায় কদাচিৎ দু’বেলা পেট ভোরে আহার করতে পেরেছেন।’

You may also like...

Skip to toolbar