Menu

মৃত্যুর ১৮ মাস পরেও মনে হচ্ছিল তিনি যেন ঘুমাচ্ছেন

মুনশি আব্দুল হামিদ কোরাইশি ছিলেন ভাওলাপুরের বিশিষ্ট ব্যক্তি। নিয়মত নামাজ আদায় করতেন, রোযা পালন করতেন, পাকিস্তান প্রতিষ্ঠার আগে ভাওয়ালপুর রাজ্যের অর্থ বিভাগের হেড ক্লার্ক ছিলেন। একটি রাজনৈতিক সমস্যার সমাধানের জন্য একটি প্রতিনিধি দলের সাথে তদানীন্তন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর সাথে দেখা করতে গিয়েছিলেন। স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বললেন, কোরায়শী সাহেব, তুমি সহকারী কর্মচারী হয়েও রাজনীতিতে অংশ নিয়েছ, আমি তোমাকে বরখাস্ত করবো। […]

READ MORE
Skip to toolbar