Menu

মহানুভবতা- শেখ সাদির গল্প

এক বাদশার কথা শুনেছি। তিনি একজন অপরাধী কয়েদীকে হত্যা করার হুকুম দিয়েছিলেন। বেচারা নিরুপায় হয়ে বাদশাহকে গালি দিতে শুরু করল এবং অশ্লীল ভাষায় যাচ্ছেতাই বকতে লাগল। লোকে বলে থাকেঃ মানুষের মনে যখন বেঁচে থাকার আশা থাকে না তখন তার মনে যা কিছু থাকে তা বলতে দ্বিধাবোধ করে না। বাদশাহ তাঁর এক মন্ত্রীকে জিজ্ঞেস করলেনঃ লোকটা […]

READ MORE

লাইলীর প্রেমে মজনু-শেখ সাদির গল্প

একদা আরব দেশে এক রাজদরাবারে লাইলী-মজনুর দুঃখময় ব্যর্থ প্রেমের কাহিনী বর্ণনা করা হয়েছিল। বলা হয়েছিল ধনকুবের পুত্র কায়েস তার প্রচুর ধন-সম্পদ, বিদ্যা-বুদ্ধি ও সামাজিক মর্যাদা থাকা সত্ত্বেও একমাত্র লাইলীর প্রেমে পাগল হয়ে বলে-জংগএল বাস করেছে। একটা সামান্য নারীর অভাবে উন্মাত্ত হয়ে সে নিজের আত্ন-মর্যাদা, বুদ্ধি-বিবেচনা সবকিছু বিসর্জন দিয়ে বসেছে। সব কিছু শুনে বাদশা মজনুকে হাজির […]

READ MORE

রাজনৈতিক চাল-শেখ সাদির গল্প

প্রাচীনকালে নওশেরোয়া নামে একজন বিখ্যাত বাদশা ছিলেন। ন্যায় বিচার ও জনপ্রিয়তায় তাঁর সুনাম ছিল জগত জোড়া। কর্মচারীবৃন্দ ও প্রজাসাধারণ সবাইকে তিনি পরম স্নেহের চোখে দেখতেন। তাঁর পুত্র হরমুজ কিন্তু অন্য প্রকৃতির লোক ছিলেন। তিনি ছিলেন খুব দৃঢ়চেতা ও কঠোর প্রকৃতির নরপতি। তাই যুবরাজ থাকা অবধি আমির ওমরাহগণ সবাই তাঁকে ভয়ের চোখে দেখত। পিতার মৃত্যুর পর […]

READ MORE

বাস্তব অভিজ্ঞতার মূল্য- শেখ সাদির গল্প

এক বাদশা নৌকায় চড়ে কোথাও যাচ্ছিলেন। তার সাথে পারস্য দেশের এক ভৃত্য ছিল। ভৃত্যটি কোনদিন নৌকা দেখেনি, নৌকায় চড়েনি। ভয়ে ভয়ে সে নৌকায় উঠল বটে, কিন্তু এক মুহুর্তের জন্যও সে স্থির হয়ে বসতে পারল না। নৌকা একটু এদিক-ওদিক কাত হলেই সে ভয়ে কাঁদতে শুরু করে এবং বলির পাঠার মত থর থর করে কাঁপতে লাগল। ভৃত্যের […]

READ MORE

অত্যাচারিত ও বোকা রাজা- শেখ সাদির গল্প

পারস্য দেশে এক রাজা ছিল। রাজা হলে কি হবে? লোকটা ছিল হৃদয়হীন, নিষ্ঠুর প্রকৃতির। দয়ামায়া বলতে তাঁর প্রানে কিছুই ছিল না। প্রজাসাধারনের অর্থসম্পদ আত্নসাত করার লোভে তাদের ওপর জোর জুলুম চালাতে তার মোটেই দ্বিধাবোধ হতো না। রাজার হৃদয়হীন ব্যবহারে তার অধিনস্থ কর্মচারীরাও তার ওপর সন্তুষ্ট ছিল না। ক্রমান্বনে অবস্থা এমন পর্যায়ে এসে দাঁড়াল যে, তার […]

READ MORE

অপাত্রে দয়ার পরিনাম- শেখ সাদির গল্প

আরব দেশের একদল দুর্ধর্ষ দস্যু এক গিরিপথের পাশে ঘাঁটি করে থাকত এবং সুযোগ মত পথিকদের কাফেলা আক্রমণ করে লুটতরাজ করত। আশেপাশের বাসিন্দারাও তাদের আক্রমণ ও অত্যাচার থেকে রেহাই পেত না। ফলে সেই গিরিপথ দিয়ে লোক চলাচল এবং বণিকদের ব্যবসা বন্ধ হবার উপক্রম হলো। স্থানীয় বাসিন্দারাও তাদের ভয়ে সর্বদা ভীত সন্ত্রস্থ থাকত। বাদশার সেনাবাহিনী যথেষ্ট চেষ্টা […]

READ MORE

অন্যায়ের উৎস- শেখ সাদির গল্প

বিখ্যাত ন্যায়পরায়ন বাদশা নওশেরোয়া একবার জংগলে হরিণ শিকারে গিয়েছিলেন। হরিণ শিকার করে তার মাংস দিয়ে কাবাব তৈরী করতে হুকুম দিলেন। ঘটনাক্রমে তাদের সঙ্গে লবণ ছিল না। লবণ আনার জন্য এক ভৃত্যকে গ্রামে পাঠানো হলো। বাদশাহ বলে দিলেনঃ খবরদার লবণ যেন দাম দিয়ে কিনে আনা হয়। আমার খাতিরে কেউ যদি খুশি হয়ে দেয়, তবুও বিনা মূল্যে […]

READ MORE

আদর্শ নরপতি- শেখ সাদির গল্প

এক যুবরাজ পিতার ওয়ারিশসুত্রে বিপুল ধনসম্পদের অধিকারী হয়েছিলোন,অন্যান্য যুবরাজের মত তিনি বিলাসী ও ক্ষমতা প্রিয় ছিলেন না। তার অন্তঃকরণটা ছিল আকাশের মত উদার এবং দয়া মহত্ত্বে ভরপুর। জনসেবা করে মানুষের হৃদয় জয় করাই ছিল তাঁর আদর্শ এবং উদ্দেশ্য। সিংহাসনে বসেই তিনি দান করতে শুরু করতেন। সেনাবাহিনী থেকে শুরু করে পথের ভাখারী পর্যন্ত সবাইকে তিনি অর্থদান […]

READ MORE

প্রেম চিনে না মান ইজ্জত- শেখ সাদির গল্প

এক বিজ্ঞ বিচক্ষণ জ্ঞানী গোপনে এক সুন্দরী নারীর রুপ মাধুর্যে মুগ্ধ আত্নহারা হয়ে পড়েছিলেন। প্রেম পাত্রীকে একদিন না দেখলে তিনি পাগলপ্রায় হয়ে যেতেন। ব্যাপারটা বেশি দিন গোপন রইল না। আস্তে আস্তে জেনে ফেলল সবাই। ফলে বিপক্ষ থেকে ঠাট্টা-বিদ্রপ ও অসংখ্য অত্যাচারমুলক আচরণ করা হতে লাগল। নিন্দা গ্লানিতে দেশ ছেয়ে গেল। সকল প্রকার অপবাদ, অপব্যবহার তিনি […]

READ MORE

বন্ধুর প্রেমে বন্ধু- শেখ সাদির গল্প

একদা রাতের বেলায় আমার এক প্রিয় বন্ধু হঠাত এসে আমার সামনে হাজির। সে ছিল আমার পরম প্রিয়পাত্র। কালের কুটিল বিবর্তনে বহুদিন ধরে তার বিরহ বিচ্ছেদে আমি বিশেষভাবে বেদনাবোধ করছিলাম এবং অধীর আগ্রহে তার আগমন প্রতিক্ষায় প্রহর গুণছিলাম। সম্পূর্ণ অপ্রত্যাশিতভাবে প্রিয় পাত্রকে পাশে পেয়ে আনন্দে আত্নহারা হয়ে গেলাম এবং এত দ্রুত আসন ছেড়ে উঠে বন্ধুকে বুকে […]

READ MORE

ছাত্রের প্রেমে ওস্তাদ-শেখ সাদির গল্প

এক ওস্তাদজী এক মক্তবে শিক্ষকতা করতেন। অনেক কোমলমতি ছাত্র-ছাত্রী তার কাছে পড়াশুনা করত। তাদের মাঝে এক ছাত্র ছিল সর্বাঙ্গ সুন্দর। তার বাইরের রুপলাবন্য ছিল যেমন সদ্য ফোটা গোলাপ ফুলের মত সুন্দর, ভেতরের মনটাও ছিল তেমনি ফেরেশতার মতো নির্মল ও পবিত্র। অধকন্তু তার কন্ঠস্বর ছিল অত্যন্ত মধুর। অপূর্ব সৌন্দর্য সুষমায় অল্পদিনেই সে ওস্তাদের হৃদয়-মন মুগ্ধ করে […]

READ MORE

নির্জনে বাস করার উপায়-শেখ সাদির গল্প

এক মুরীদ তার পীরের কাছে দুঃখ প্রকাশ করে বলেছিলঃ হুজুর লোকজনের হুকুমে বড় পেরেশানীর মধ্যে আছি। লোকজন এতবেশি আমার কাছে যাতায়াত করে যে, তাদের তাড়নায় সর্বদা অস্থির থাকতে হয়। নিরালায় ইবাদত করার ফুরসুতই পাই না। কি করি? পীর সাহেব পরামর্শ দিলেনঃ বাবা গরীব লোক যারা আসে, তাদেরকে কিছু কিছু কর্জ দিও। আর ধনী যারা আসে, […]

READ MORE

ভিক্ষা চাইনে কুকুর ঠেকাও- শেখ সাদির গল্প

এক স্থুল বুদ্ধি কবি এক অপরিচিত গ্রামের মধ্য দিয়ে যাচ্ছিল। সে একটা বিরাট বাড়ি দেখে মনে করল, এটা নিশ্চয় কোন আমীর ওমরাহের বাড়ি হবে। কিছু বকশিশ পাওয়ার আশায় সে বাড়ির ভেতর ঢুকে পড়ল। বাড়িটা ছিল সে অঞ্চলের কুখ্যাত দস্যুদলের সর্দারের। বাড়িওয়ালার সামনে গিয়েই কবি তার প্রশংসাসূচক কবিতা তৈরি করে সুললিত কণ্ঠে আবৃতি শুরু করে দিল। […]

READ MORE

আজব জন্ম-শেখ সাদির গল্প

জ্ঞানী মনীষীরা তাদের গ্রন্থে লিখেছেন যে, অন্যান্য কীট- পতঙ্গের মত বিছার ভূমিষ্ট হবার নির্দিষ্ট সময় নেই। ওগুলো নিজেদের মায়ের উদরের গোশত খেয়ে যখন পেট ফেটে যায়, তখন মা মারা যায় এবং বাচ্চারা বেরিয়ে চারদিকে ছড়িয়ে পড়ে। বিছার গর্তে যে খোলস দেখতে পাওয়া যায়, এগুলো সেই মৃত মায়ের দেহাবশেষ। এই তত্ত্ব একজন বুজুর্গ লোকের সামনে বর্ণনা […]

READ MORE

যেমন ছাত্র তেমন শিক্ষক-শেখ সাদির গল্প

পাশ্চাত্য পরিভ্রমণকালে এক মক্তবে একজন শিক্ষক দেখেছিলাম। ওই ধরনের শিক্ষক আমি আর দেখিনি। লোকটা ছিল বেজায় বদমেজাজী, কর্কশভাষী, নির্দয়, অসামাজিক, কঠোর প্রকৃতির একটা ভয়াবহ মূর্তি। তার মুখের দিকে তাকালে মন বিরক্তিতে ভরে ওঠে, আলাপ করার আগ্রহ থাকে না। আর তার কুরআন শরীফ পড়ানো শুনলে মুসলমানের মনেও ভক্তির পরিবর্তে বিতৃষ্ণা জন্মে। একপাল কোমলমতি নিষ্পাপ ছাত্র-ছাত্রী তার […]

READ MORE

অপরিণামদর্শী ছেলে- শেখ সাদির গল্প

এক দরিদ্র দরবেশের পুত্র তার পিতৃব্যদের উত্তরাধিকার সূত্রে বিস্তার ধনরত্নের মালিক হয়েছিল। আনন্দে আত্নহারা হয়ে সে অসংখ্য অন্যায় অপকর্মে লিপ্ত হলো এবং অর্থের অপব্যয় শুরু করে দিল। মোটকথা এমন কোন অন্যায় কাজ রইল না, যা সে না করল এবং এমন কোন নেশার জিনিস ছিল না, যা সে পান না করল। একদা উপদেশস্বরূপ তাকে সস্নেহে বললামঃ […]

READ MORE

নাস্তিকের সাথে বাহাছ- শেখ সাদির গল্প

একবার এক খোদাদ্রোহী নাস্তিকের সাথে একজন নির্ভরযোগ্য বিজ্ঞ আলেমের বাহাছ হয়েছিল। নাস্তিকের সাথে তর্কযুদ্ধে না পেরে আলেম সাহেব পরাজয় স্বীকার করেন এবং পিছপা হয়ে ফিরে আসেন। এক ব্যক্তি তাকে জিজ্ঞেস করলঃ হুজুর! আপনি এদেশের অদ্বিতীয় আলেম। কুরআন, হাদিস, মানতিক, ইলমে কালাম প্রভৃতি বিভিন্ন বিষয়ে এত দক্ষতা থাকা সত্ত্বেও একজন ধর্মদ্রোহীর সাথে যুক্তিতর্কে হেরে গেলেন। কারণ […]

READ MORE

মানির মান মানিরাই জানে- শেখ সাদির গল্প

দ্বিগ্বিজয়ী মহামতি আলেকজান্ডারকে জিজ্ঞেস করা হয়েছিলঃ মাশরেক থেকে মাগরিব পর্যন্ত এত দেশ আপনি কি করে জয় করেছেন? তখনকার দিনের রাজা বাদশাহদের হায়াত, ধনরত্ন ও সৈন্য সামন্ত আপনার চেয়ে অনেক বেশি ছিল। এতদেশ জয় করা আর কারো পক্ষে সম্ভব হয়নি। তিনি উত্তর দিয়ে বললেনঃ খোদার অশেষ অনুগ্রহে এটা আমার পক্ষে সম্ভব হয়েছে, তবে যে দেশ আমি […]

READ MORE

সত্যিকার মানুষ-শেখ সাদীর গল্প

শত্রুদের ওপর রাজা বাদশাদের এত বেশি ক্রোধ চালান উচিত না। যেন বন্ধুরা তাদের ওপর আস্থা হারিয়ে ফেলে। ক্রোধের আগুনে শত্রু জ্বলুক বা না জ্বলুক ক্রোধান্বিত ব্যক্তির অবশ্য জ্বলতে হয়। মাটির তৈরী মানুষের মনে বিন্দুমাত্র অহংকার বা আত্নাভিমান থাকা উচিত নয়। তোমার মাঝে যদি এসব থাকে, তাহলে মনে করব, তুমি মাটির তৈরি নও; বরং আগুনের তৈরি। […]

READ MORE

ন্যায়পরায়ন শিক্ষক- শেখ সাদির গল্প

এক প্রভাবশালী ।সম্রাট এক অভিজ্ঞ শিক্ষাকের হাতে রাজকুমারের শিক্ষার ভার দিয়ে বললেনঃ শুনুন ওস্তাদজী! এ ছেলে  আপনার নিজের সন্তান মনে করে শিক্ষা দেবেন।। কোন রকম ত্রুটি করবেন না। ওস্তাদজী সবিনয়ে বললেনঃ জো হুকুম জাঁহাপানা। বেশ কয়েক বছর ধরে তিনি প্রাণপন প্রচেষ্টা চালালেন। কিন্তু যুবরাজকে তিনি বিদ্যাবুদ্ধি কিছু শিখাতে পারলেন। পক্ষান্তরে তার নিজের ছেলেরা জ্ঞানে গুণে […]

READ MORE

শেখ শাদী (র)’র বেয়াদবের কাছ থেকে আদব শেখা

শেখ শাদী (র) সাধারনত খুবই সাদাসিদে জীবনযাপন করতেন। একবার এক দাওয়াতে তিনি ছেড়া ও নোংরা কাপড় চোপড় পড়ে চলে গেলেন। তাই মেজবান তাকে চিনতে না পেরে ফকির ভেবে অপেক্ষাকৃত কম ও অনুন্নত খাবার দিলেন। শেখ শাদী বিষয়টি বুঝতে পারলেন। তিনি ঐ কম ও অনুন্নত খাবার খেয়ে ফিরে এলেন এবং কিছুক্ষন পর আবার ভালো ও শাহেনশাহী […]

READ MORE

কৃতজ্ঞতা- শেখ সাদির গল্প

হযরত লোকমান হাকিম তখন যুবক। একটি ঘটনায় তাকে বন্দী হিসেবে আটক করা হলো। পরে তাকে এক ধনী লোকের ক্রীতদাস হিসেবে বিক্রি করা হলো। সৌভাগ্যক্রমে লোকমানের মনিব ছিলেন একজন বুদ্ধিমান ও রুচিশীল মানুষ। অল্পদিনের মধ্যেই তিনি লোকমানের মধ্যে লুকিয়ে থাকা বুদ্ধি, বিবেক, জ্ঞান, প্রজ্ঞা ও ঈমান দেখে মুগ্ধ হলেন। দেখতে দেখতে মালিক, লোকমান হাকীমকে নিজের সন্তানের […]

READ MORE
Skip to toolbar