Menu

সূরা কাহাফ: অবতীর্ণের কারণ, কতিপয় শিক্ষা ও ফজীলত

আল্লামা ইবনে কাছীরসহ অন্যান্য মুফাসসিরে কেমরাম আব্দুল্লাহ ইবনে আব্বাস (রাঃ) হতে বর্ণনা করেন যে, মক্কার কুরাইশরা নযর বিন হারিছ এবং উকবা বিন আবু মঈতকে মদীনার ইহুদী আলেমদের কাছে পাঠাল। তারা তাদের উভয়কে বললঃ তোমরা মদীনায় যাও এবং মুহাম্মাদ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লামএর ব্যাপারে তাদেরকে জিজ্ঞাসা কর। তোমার তাদেরকে মুহাম্মাদের গুণাগুণ সম্পর্কেও বল এবং সে যা […]

READ MORE

সূরা আল-কাফিরুনের সংক্ষিপ্ত ব্যাখ্যা

সরল বঙ্গাবনুবাদঃ ১) বলুনঃ হে কাফের সম্প্রদায়! ২) তোমরা যার ইবাদত কর আমি তার ইবাদত করি না। ৩) তোমরাও ইবাদতকারী নও যার আমি ইবাদত করি । ৪) আর আমি ইবাদতকারী নই তোমরা যার ইবাদত কর। ৫) তোমরা ইবাদতকারী নও যার আমি ইবাদত করি। ৬) তোমাদের দ্বীন তোমাদের জন্য আমার দ্বীন আমার জন্য। সূরার শানে নযূলঃ […]

READ MORE

সূরা আল মায়িদাহ-নামকরণ ও নাযিলের সময়কাল

 নামকরণ  এ সূরার ১৫ রুকূর একটি আয়াতে উল্লেখিত ‘মায়িদাহ’ শব্দ থেকে এ নামকরণ করা হয়েছে। মায়িদাহ শব্দের অর্থ ‘খাবার টেবিল’ বা ‘এমন একটি টেবিল যাতে খাবার পরিবেশিত আছে’। কুরআনের অধিকাংশ সূরার নামের মতো এ সূরার নামের সাথেও এর আলোচ্য বিষয়বস্তুর তেমন কোন সম্পর্ক নেই। নিছক অন্যান্য সূরা থেকে আলাদা হিসেবে চিহ্নিত করার জন্যই একে এ […]

READ MORE

সূরা আল মায়িদা নাযিলের উপলক্ষ

  আল ইমরান ও আন নিসা সূরা দুটি যে যুগে নাযিল হয় সে যুগ থেকে এ সূরাটির নাযিলের যুগে পৌঁছতে বিরাজমান পরিবেশ ও পরিস্থিতিতে অনেক বড় রকমের পরিবর্তন সূচিত হয়েছিল। উহুদের যুদ্ধের বিপর্যয় যেখানে মদীনার নিকটতম পরিবেশও মুসলমানদের জন্য বিপদসংকুল করে তুলেছিল। সেখানে এখন সম্পূর্ণ ভিন্নতর পরিস্থিতির উদ্ভব হয়েছে। আরবে ইসলাম এখন একটি অজেয় ও […]

READ MORE

সূরা আল মায়িদার আলোচ্য বিষয়সমূহ

নিম্নলিখিত তিনটি বড় বড় বিষয় এ সূরাটির অন্তর্ভুক্তঃ ১. মুসলমানদের ধর্মীয়, তামাদ্দুনিক, সাংস্কৃতিক ও রাজনৈতিক জীবন সম্পর্কে আরো কিছু বিধি নির্দেশ। এ প্রসংগে হজ্জ সফরের রীতি-পদ্ধতি নির্ধারিত হয়। ইসলামী নিদর্শনগুলোর প্রতি সম্মান প্রদর্শন এবং কাবা যিয়ারতকারীদেরকে কোন প্রকার বাধা না দেবার হুকুম দেয়া হয়। পানাহার দ্রব্য সামগ্রীর মধ্যে হালাল ও হারামের চূড়ান্ত সীমা প্রবর্তিত হয়। […]

READ MORE

সুরা আন নিসা

সূরা আন নিসা (আরবি ভাষায়: سورة النساء, Sūratu an-Nisā, “অর্থ নারী”) মুসলমানদের ধর্মীয় গ্রন্থ কুরআনের ৪ নম্বর সূরা, এর আয়াত সংখ্যা ১৭৬টি এবং এর রূকুর সংখ্যা ২৪টি। আন নিসা সূরাটি মদিনায় অবতীর্ণ হয়েছে। এই সূরাতে মুসলিমদের জীবন পরিচালনা ও কিভাবে একতাবদ্ধ থাকতে হবে সে সম্পর্কে বলা আছে। নাযিল হওয়ার সময়-কাল ও বিষয়বস্তু এ সূরাটি কয়েকটি […]

READ MORE

সূরা আল ইমরান

নামকরণ এই সূরার এক জায়গায় ‘‘আলি-ইমরান’’ বা ‘ইমরানের বংশধরদের’ কথা বলা হয়েছে । একেই আলামত হিসেবে এর নাম গণ্য করা হয়েছে। (এই সূরাটির নামের শুদ্ধ উচ্চারণ হলো ‘আলি ইমরান’)। নাযিলের সময়-কাল ও বিষয়বস্তুর অংশসমূহ প্রথম ভাষণটি সূরার প্রথম থেকে শুরু হয়ে ৩২ নং আয়াত পর্যন্ত চলেছে এবং এটি সম্ভবত বদর যুদ্ধের নিকটবর্তী সময়ে নাযিল হয়। […]

READ MORE

সূরা আল বাকারা

নামকরণ বাকারাহ মানে গাভী। এ সূরার ৬৭ থেকে ৭৩ নম্বর আয়াত পর্যন্ত হযরত মুসা (আঃ) এর সময়কার বনি ইসরাইল এর গাভী কুরবানীর ঘটনা উল্লেখ থাকার কারণে এর এই নামকরণ করা হয়েছে। কুরআন মজীদের প্রত্যেকটি সূরার এত ব্যাপক বিষয়ের আলোচনা করা হয়েছে যার ফলে বিষয়বস্তুর দিক দিয়ে তাদের জন্য কোন পরিপূর্ণ ও সার্বিক অর্থবোধক শিরোনাম উদ্ভাবন […]

READ MORE

সূরা আল ফাতিহা

সূরা আল ফাতিহা (আরবি ভাষায়: سورة الفاتحة) মুসলমানদের ধর্মীয় গ্রন্থ কুরআনের ১ নম্বর সূরা, এর আয়াত সংখ্যা ৭ এবং রূকু সংখ্যা ১। ফাতিহা শব্দটি আরবি “ফাতহুন” শব্দজাত যার অর্থ “উন্মুক্তকরণ”। এটি আল্লহ’র তরফ থেকে বিশেষ উপহার। সূরা ফাতিহা অন্যান্য সূরার ন্যায় বিসমিল্লাহির রাহমানির রাহীম দিয়ে শুরু। আল ফাতিহা সূরাটি মক্কায় অবতীর্ণ হয়েছে বিধায় মক্কী সূরা […]

READ MORE
Skip to toolbar