Category: আহকামে জিন্দেগী

দাজ্জাল সম্পর্কে আকীদা

দাজ্জাল শব্দের অর্থ প্রতারক, ধোঁকাবাজ। আল্লাহ তাআল শেষ যামানার লোকদের ঈমান পরীক্ষা করার জন্য একজন লোককে প্রচুর ক্ষমতা প্রদান করবেন। তাঁর এক চোখ কানা আর এক চোখ টেরা থাকবে। চুল কোঁকড়া ও লাল বর্ণের...

হযরত ঈমাম মাহদী সম্পর্কে আকীদা

কিয়ামতের ছোট ছোট আলামত প্রকাশিত হওয়ার পর একটা সময় এমন আসবে, যখন কাফেরদের প্রভাব খুব বেশি হবে, চতুর্দিকে নাসারাদের রাজত্ব কায়েম হবে, খায়বারের নিকট পর্যন্ত নাসারাদের আমলদারী হবে। এমন সময় মুসলমানগণ তাদের বাদশা বানানোর...

এখলাস ও সহীহ নিয়ত কাকে বলে? এবং তা হাসিলের পদ্ধতি কি?

ইবাদত একমাত্র আল্লাহর রাজী খুশি করার নিয়তে করা এবং আল্লাহ ব্যতীত অন্য কাউকে রাজী খুশী করার ইচ্ছা বা নিজের নফসের কোন খাহেশকে মিশ্রিত না করার নাম হল এখলাস তথা খাঁটি নিয়ত। কোন কোন ইবাদতে...

তাক্ওয়া ও খোদাভীতি কি ও তা অর্জনের পদ্ধতি কি?

“তাক্ওয়া” কথাটি দুই অর্থে ব্যবহার হয়। ১. ভয় ২. বিরত থাকা। বস্তত ভয়ে আসলেই মানুষ কোন কিছু থেকে বিরত থাকে; তাই ভয় হল বিরত থাকার কারণ আর বিরত থাকা (অর্থাৎ গুনাহ থেকে বিরত থাকা...

ছবর বা ধৈর্য কাকে বলে এবং তা অর্জনের পদ্ধতি কি?

ছবর বা ধৈর্য অর্থ মনকে মজবূত রাখা, মনকে ধরে রাখা। ছবর কয়েক প্রকারঃ ক. ইবাদতের সময় ছবর, অর্থাৎ, ইবাদত ও নেক কাজের উপর মনকে পাবন্দির সাথে ধরে রাখা এবং ধৈর্য সহকারে সহীহ তরীকায় তা...

শোকর কাকে বলে এবং তা অর্জনের পদ্ধতি কি?

আল্লাহ তাআলা প্রদত্ত অসংখ্য নেয়ামতের প্রতি সন্তুষ্ট হয়ে তাঁকে ভালোবাসা ও দীপ্ত মনে ইবাদত করার নামই শুকরিয়া বা কৃতজ্ঞতা। একথা বলার অপেক্ষ রাখে না যে, প্রতিটি মামনুষ প্রতি মুহূর্তে আল্লাহ তাআলার হাজার হাজার নেয়ামত...

হিংসা কি ও তা থেকে মুক্তির উপায় কি?

কারও জ্ঞান, বুদ্ধি, সম্পদ, মান-ইজ্জত, সুখ-স্বাচ্ছন্দ ইত্যাদি ভাল কিছু দেখে মনে কষ্ট লাগা এবং আকাংখা হওয়া যে সেটা না থাকুক বা ধ্বংস হয়ে যাক এবং তা হলেই মনে আনন্দ লাগা- এই মনেবৃত্তিকে বলা হয়...

অহংকারের ক্ষতি কি কি ও তা থেকে মুক্তির উপায় কি?

জ্ঞান-বুদ্ধি, ইবাদত-বন্দেগী, মান-সম্মান, ধন-দৌলত ইত্যাদি যে কোন দ্বীনী বা দুনিয়াবী গুণে নিজেকে বড় মনে করা এবং সেই সাথে অন্যকে সে ক্ষেত্রে তুচ্ছ মনে করাকে বলে তাকাব্বুর বা অহংকার। অহংকার গুনাহে কবীরা। কেউ এ রোগে...

বুখল বা কৃপনতা কাকে বলে ও তা থেকে পরিত্রানের সহজ উপায় কি?

শরীয়াতের আলোকে যেখানে ব্যয় করা জরুরী বা মানবিক কারণে যেখানে ব্যয় করা জরুরী, সেখানে ব্যয় করতে সংকীর্ণতা করাকে বলা হয় বুখল বা কর্পণ্য। প্রথম স্থানে ব্যয় না করা গুনাহ আর শেষোক্ত স্থানে ব্যয় না...

দুনিয়া ও ধন-সম্পদের প্রতি মহব্বত রাখা কতটা অন্যায় ও তার প্রতিকার কি?

সম্পদের প্রতি ভালবাসা বড়ই ধ্বংসাত্মক গুণ। কোন মুমিনের অন্তরে যদি এই প্রেম একবার সুর তুলতে পারে তাহলে সেখানে আর আল্লাহর স্মরণ, আল্লাহর ভালবাসার ঠাঁই হয় না। কারণ, এই জাতীয় মানুষের চব্বিশ ঘন্টার ঘান্ধা থাকে...

গান-বাদ্য শ্রবণ করা কেমন ও তা বর্জনের উপায় কি?

আবু দাউদ, ইবনে মাজা, ইবনে হিব্বান, মুসনাদে আহমাদ প্রভৃতি হদীসের কিতাবে বর্ণিত নির্ভরযোগ্য হাদীছে গান-বাদ্য হারাম হওয়া সম্পর্কে স্পষ্ট উল্লেখ এসেছে। কুরআন শরীফেও এরূপ বর্ণনা এসেছে। কেবল সুললিত কণ্ঠে যদি কোন কবিতা পাঠ করা...

মদ, গাজা, ভাং, আফিম, হেরোইন প্রভৃতির নেশা করা কেমন ও তা বর্জনের উপায় কি?

শরীয়াতে এসব নেশাকর দ্রব্য সম্পূর্ণ হারাম, অল্প হোক চাই বেশী হোক। এ সবের শারীরিক, আত্মীক, নৈতিক, আর্থিক ও জাগতিক বিভিন্ন প্রকারের ক্ষতির কারণেই শরীয়াত এগুলোকে নিষিদ্ধ করেছে। এ সবের বদ-অভ্যাসে কেউ জড়িত হয়ে পড়লে...

বিড়ি, সিগারেট, হুক্কা ও তামাক সেবন করা কেমন ও তা বর্জনের উপায় কি?

বিড়ি, সিগারেট, হুক্কা ইত্যাদি ধুমপান ও তামাক সেবন মাকরূহে তানযীহী। আর এগুলোর দুর্গন্ধ মুখে থাকা অবস্থায় মসজিদে গমন করা হারাম। কিতাবে লিখা আছে, তামাক যদি নেশা যুক্ত হয় তাহলে নিষিদ্ধ, দুর্গন্ধযুক্ত হলে মাকরূহ, অন্যথায়...

যেনা (ব্যভিচার)- এর ভয়াবহতা ও তা থেকে বেঁচে থাকার উপায় কি?

যেনা অর্থাৎ, নারীর সতীত্ব নষ্ট করা এবং পুরুষের চরিত্র নষ্ট করা। এটা অতি জঘন্য কবীরা গুনাহ।। বিবাহিত অবস্থায় যেনা করলে এবং তা স্বীকার করলে অথবা চারজন সত্যবাদী চাক্ষুস সাক্ষীর দ্বারা প্রমাণিত হলে তার শাস্তি...

গীবত (অপরের দোষ চর্চা) কেমন ও তা থেকে বাঁচার পথ কি?

  হেয় করে তোলার উদ্দেশ্যে পশ্চাতে কারও প্রকৃত দোষ-ত্রুটি বর্ণনা করাকে গীবত বলে। আর প্রকৃতপক্ষে সে দোষ তার মধ্যে না থাকলে সেটাকে বলে বুহতান, (অপবাদ)। যা গীবতের চেয়েও বড় অপরাধ। জ্ঞান, বুদ্ধি, বিবেক, পোশাক-পরিচ্ছেদ,...

ফুটবল ও ক্রিকেট খেলা যাবে কি না?

এ খেলা শরীরের ব্যায়ামের উদ্দেশে খেললে জায়েয, যদি সতর খোলা না হয়, অতিরিক্ত সময় বা পয়সা নষ্ট না হয়, যদি নামায ইত্যাদি জরুরী কাজকর্ম ও ইবাদত নষ্ট না হয়। এ খেলাতেও টাকা-পয়সার হার জিত...

রিয়া বা লোক দেখানোর মনোভাব কাকে বলে ও তা থেকে পরিত্রানের সহজ উপায় কি?

ইবাদত ও আল্লাহর আনুগত্যের কাজে এই উদ্দেশ্য রাখা যে, তা মানুষ দেখবে, এতে মানুষের চোখে আমার সম্মান বৃদ্ধি পাবে- একে বলে রিয়া বা লোক দেখানো। এটা মহাপাপ। রিয়া নানা ভাবে হয়ে থাকে- কখনও মুখে...

জুয়া খেলা যাবে কি না?

জুয়া বলা হয় এমন লেন-দেনকে, যেখানে কোন মালের মালিকানা এমন সব শর্ত নির্ভর হয় যাতে মালিক হওয়া না হওয়া উভয় সম্ভাবনাই সমান থাকে; যার ফলে পূর্ণলাভ বা পূর্ণ লোকসান উভয় দিকই থাকে- কেউ কেউ...

অতিথি পরায়ণতার মর্ম কি?

অতিথি পরায়ণতা মূলতঃ একটি মনের চরিত্র। মেহমানকে শুধু পর্যাপ্ত আপ্যায়ন করানোর নাম অতিথি পরায়ণতা নয়, বরং সাধ্য অনুযায়ী মেহমানকে আপ্যায়নতো রয়েছে, সেই সাথে প্রফুল্লচিত্তে এবং বিকশিত মনে মেহমানকে গ্রহণ করা ও তার সাথে সম্মানজনক...

লজ্জাশীলতার বাস্তব স্বরূপ কি?

নিন্দা সমালোচনার ভয়ে কোন দূষণীয় কাজ করতে মানুষের মধ্যে যে জড়ত্ববোধ হয়ে থাকে সেটাকে বলে হায়া বা লজ্জা। এই লজ্জা মানুষকে ভাল কাজের পদক্ষপে গ্রহণ করতে এবং মন্দ কাজ থেকে বিরত থাকতে উদ্বুদ্ধ করে।...

তাওবার জন্য মোট কয়টি কাজ করতে হবে?

তওবার জন্য মোট পাঁচটি কাজ করতে হবে: এক. খাঁটি অন্তরে তওবা করতে হবে। অর্থাৎ- শুধুমাত্র আল্লাহর আযাবের ভয় ও তাঁর নির্দেশের মহত্বকে সামনে রেখে তওবা করতে হবে। দুই. অতীত পাপের প্রতি অনুতপ্ত ও লজ্জিত...

বিদআত’ কাকে বলে?

বিদআত’ কাকে বলে? তার সংক্ষিপ্ত বিবরণ পেশ করুন। উত্তরঃ বিদআত অর্থ নতুন সৃষ্টি। শরীয়তের পরিভাষায় বিদআত বলা হয় দ্বীনের মধ্যে কোন নতুন সৃষ্টিকে, অর্থাৎ দ্বীনের মধ্যে ইবাদত মনে করে এবং অতিরিক্ত ছওয়াবের আশায় এমন...

Skip to toolbar