Menu

হযরত মুসা আ:’র জামানার চমৎকার একটি ঘটনা

হযরত মুসা আ: একবার আল্লাহ্ তায়ালাকে জিজ্ঞেস করলেন, হে আল্লাহ্! জান্নাতে আমার সাথে কে থাকবে? জবাবে বলা হলো,ওমুক কসাই ! জবাবে কসাইয়ের নাম শুনে মুসা আ: খুবই আশ্চর্য হলেন। অনেক খোঁজ করার পর মুসা আ: তাকে বের করলেন। দেখলেন, কসাই গোস্ত বিক্রিতে ব্যস্ত! সবশেষে কসাই একটুকরো গোস্ত একটি কাপড়ে মুড়িয়ে নিলেন। অতঃপর বাড়ির দিকে রওয়ানা […]

READ MORE

হাদিস

 আবূ হুরায়রা (রাদিয়াল্লাহু আ‘নহু) থেকে বর্ণিত, রাসূলুল্লাহ (সাল্লাল্লাহু আ‘লাইহি ওয়া সাল্লাম) বলেছেন, “মুসলিম বা মু‘মিন বান্দা যখন ওযূর উদ্দেশে তার মুখমণ্ডল ধৌত করে, তখন পানির সাথে অথবা পানির শেষ বিন্দুর সাথে প্রত্যেক সেই গুনাহ বের হয়ে যায়, যা সে দুই চক্ষুর দৃষ্টির মাধ্যমে করে ফেলেছিল। অতঃপর যখন সে তার হাত দুটিকে ধৌত করে, তখন পানির […]

READ MORE

পৃথিবীর সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বিপ্লবী- বিশ্বনবী মোহাম্মদ (সা.) -শেষ অংশ

প্রথম অংশ পড়তে এখানে ক্লিক করুন এটা ইতিহাস যে, অসম্ভব প্রতিভার অধিকারী কার্ল মার্ক্স সারাটা জীবন অক্লান্ত পরিশ্রম করে মানবজীবনের কেবল অর্থনৈতিক মুক্তির একটি তত্ত্ব আবিষ্কার করেছিলেন। সে তত্ত্বও ভারসাম্যপূর্ণ নয়, সম্পূর্ণ আত্মাবিবর্জিত সুতরাং অপ্রাকৃতিক। অথচ বিশ্বনবী কেবল অর্থনীতি নয়, কেবল জাতীয় নীতি নয়, কেবল আইন-কানুন-দণ্ডবিধি নয়, কেবল প্রশাসন পরিচালনা নয়, কেবল নারী অধিকার নিশ্চিতকরণ […]

READ MORE

পৃথিবীর সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বিপ্লবী- বিশ্বনবী মোহাম্মদ (সা.) -১ম অংশ

শেষ অংশ পড়তে এখানে ক্লিক করুন প্রাক ইসলামী আরবরা ছিল ভিখিরির জাত। ন্যূনতম সামরিক শক্তি, অর্থনৈতিক শক্তি, রাজনৈতিক স্থিতিশীলতা, নৈতিকতাবোধ, সামাজিক ও পারিবারিক বন্ধন, জ্ঞান-বিজ্ঞানের চর্চা, মানবিক উৎকর্ষতা, পারস্পরিক ভ্রাতৃত্ব, ঐক্যচেতনা ইত্যাদি কিছুই তাদের ছিল না। শুধু ছিল বংশানুক্রমিক গৃহযুদ্ধ, গোত্রে গোত্রে হানাহানি, রক্তারক্তি, শত্রুতা, সীমাহীন অজ্ঞানতা, কুসংস্কার, ধর্মবাণিজ্য, জেনা-ব্যাভিচার, চুরি, ডাকাতি, লুটতরাজ, হুজুগপ্রবণতা, মাদকাসক্তি, […]

READ MORE

হযরত খিজিরের (আঃ) তাকওয়া

হযরত আবু উমামা (রাদ্বিআল্লাহুতা’লা ’আনহু) বর্ণনা করেন যে, আল্লাহ’র রাসুল (সল্লাল্লাহু ’আলাইহি ওয়া সাল্লাম) ফরমান: আমি কি তোমাদের খিজিরের ঘটনা বয়ান করবো না? তাঁরা (সাহাবায়ে কেরাম) বললেন: আলবাত ইয়া রাসুলাল্লাহ! তিনি ফরমালেন: একবার তিনি বনি ইসরাঈলের একটি বাজারে পায়চারী করছিলেন। এক মুকাতিব (যে দাস তার ক্রয়মূল্য মালিককে শোধ করলে মুক্তি পাবে – এ শর্তে আবদ্ধ) […]

READ MORE

হযরত ইবরাহীম আলাইহিস্সালাম ও সারা রা. এর ঘটনা

হযরত ইবরাহীম আ. যখন নমরূদের অগ্নীকুন্ড থেকে সহী-সালামতে বের হয়ে আসলেন তখনও তার সম্প্রদায়ের লোকেরা ঈমান আনতে রাজী হলো না বরং অস্বীকৃতি জ্ঞাপন করলো তখন তিনি বললেন ঃ إني ذاهب إلى ربي سيهدين অর্থ ঃ আমি পৌত্তলিকতার স্থান ছেড়ে এমন জায়গায় চলে যাব যেখানে স্বাধীনভাবে আমার রবের ইবাদত করতে পারবো। সত্তর তিনি আমাকে এমন স্থানের […]

READ MORE

হযরত ঈসা আঃ কতৃক এন্তাকিয়া শহরে দাওয়াতের জন্য দুই ব্যক্তি প্রেরণ ও হাবীবে নাজ্জার এর ঘটনা

ওয়াহাব ইবনে মুনাব্বিহ (রঃ) বর্ণনা করেন, হযরত ঈসা আলাইহিস্সালাম দুই ব্যক্তিকে এন্তাকিয়া শহরে সত্যের দাওয়াত দিতে প্রেরণ করেণ। এই জনপদের রাজার নাম ছিল আনতাফাস। সে ছিল মূর্তি পূজক। ঐ দুই ব্যক্তি এন্তাকিয়া পৌঁছলেও রাজার নিকট যেতে পারেনি। অনেক দিন তাদের অপেক্ষা করতে হয়েছে। একদিন রাজা শহরে বের হলো, তারা উভয় উচ্ছঃস্বরে আল্লাহু আকবার বলেন। উচ্ছ […]

READ MORE

হযরত দাউদ আলাইহিস্সালামকে বর্ম নির্মাণ কৌশল শিক্ষা দেওয়ার রহস্য

তাফসীরে ইবনে কাসীরে বর্ণিত আছে- হযরত দাউদ (আঃ) তাঁর রাজত্ব কালে ছদ্মবেশে বাজারে গমন করতের এবং বিভিন্ন দিক থেকে আগত লোকদের জিজ্ঞাস করতেন যে, দাউদ কেমন লোক? তাঁর রাজত্বে ইনসাফ ও সুবিচার প্রতিষ্ঠিত ছিল। সব মানুষ সুখে শান্তিতে দিনাতিপাত করত। রাষ্ট্রের বিরুদ্ধে কারও কোন অভিযোগ ছিল না। তাই যাকেই প্রশ্ন করা হত, সেই হযরত দাউদ […]

READ MORE

হযরত সোলায়মান (আঃ) এর মৃত্যুর বিস্ময়কর ঘটনা

হযরত সোলায়মান (আঃ) অদ্বিতীয় ও অনুপম সম্রাজ্যের অধিকারী ছিলেন। কেবল সমগ্র বিশ্বের নয়, বরং জিন জাতি বিহঙ্গকুল ও বায়ুর উপরও তাঁর আদেশ কার্যকর ছিল। কিন্তু এতসব উপায় উপকরণ থাকা সত্বেও তিনি মৃত্যুর কবল থেকে রেহাই পেলেন না। নির্দিষ্ট সময়ে তার মৃত্যু আগমন করেছে। বায়তুল মোকাদ্দাসের নির্মান কাজ হযরত দাউদ (আঃ) শুরু করেছিলেন এবং হযরত সোলায়মান […]

READ MORE

হযরত মূসা (আঃ) শুভ জন্মের ঘটনা

হযরত আব্দুল্লাহ ইবনে আব্বাস (রাঃ)- বর্ণনা করেন, যখন হযরত মূসা (আঃ) এর জন্মগ্রহনের সময় হলো তখন তাঁর মাতা একজন দাত্রীকে ডাকলেন। এই দাত্রী সেই দাত্রীদের অন্যতম, যাদেরকে ফেরাউনের লোকেরা নিযুক্ত করে রেখেছিল। যে বাড়িতে কোনো শিশুর জন্ম হতো, তাদের কাজ ছিল ফেরাউনের লোকদেরকে নবজাত শিশুর জন্মের সংবাদ দেওয়া। এ খবরের ভিত্তিতেই ফেরাউনের ঘাতক বাহিনী এসে […]

READ MORE

হযরত মূসা (আঃ)-এর মাদইয়ানে উপস্থিতি ও শোআইব (আঃ) এর গৃহে আশ্রয় লাভ

প্রচন্ড গরম, উত্তপ্ত বালুকাময় পথ সহ্য করে হযরত মূসা (আঃ) মিশর থেকে মাদইয়ানে পৌঁছেছেন। এখন তিনি ফিরআউনী শত্রম্ন কর্তৃক ধৃত হবার দূর্ভাবনা মুক্ত, কিন্তু তিনি তখনও অবহিত হতে পারেন নাই যে, তিনি মাদইয়ানে উপনীত হয়েছেন। দীর্ঘ পথ চলার শ্রান্ত্মিজনিত অবসান্নতা, তদুপরি ÿুধা তৃষ্ণা, সব মিলিয়ে তিনি অত্যন্ত্ম দুর্বল হয়ে পড়েন। তাই দৈহিক অবসাদ অবসন্নতা দূরীকরণার্থে […]

READ MORE

হযরত সালেহ (আঃ) এর ঘটনা

সামুদ জাতির নিকট হযরত সালেহ (আঃ) রাসূল হিসেবে প্রেরিত হয়েছিলেন। সামুদ জাতি অত্যন্ত্ম সমৃদ্ধশালী ছিল, শস্য-শ্যামলিমায় পরিপূর্ণ ছিল তাদের এলাকা। বাগ-বাগিচা, ঝর্ণায় এক নয়নাভিরাম দৃশ্যের অবতারণা করা হয়েছিল তাদের চতুর্দিকে। কিন্ত্মু এ হতভাগা জাতি আলস্নাহ পাকের অবাধ্য অকৃতজ্ঞ ছিল। মূর্তি পূজা ও ডাকাতি- রাহজানিতে লিপ্ত ছিল। তাই হযরত সালেহ (আঃ) তাদেরকে উপদেশ দিয়েছিলেন। হযরত (আঃ)- […]

READ MORE

হযরত সোলায়মান (আঃ) পিপীলিকা দলের বসবাসস্থলে

হযরত সোলায়মান (আঃ) এর সেনাবাহিনী জ্বিন ও মানবকুল সমন্বয়ে গঠিত ছিল। অন্যান্য জীবকুলও তাঁর সেনাবাহিনীতে অন্ত্মর্ভুক্ত ছিল। বিশাল বাহিনী হওয়া সত্ত্বেও কোন প্রকার বিশৃংখলা ছিল না, বিশৃংখলা পরিস্থিতি সৃষ্টির সাহসও কেউ পেত না। মর্যাদানুযায়ী সবারই স্থান নির্ধারিত ছিল। নির্ধারিত স্থানে সারিবদ্ধ হওয়া ব্যতিরেকে কোন বাহিনীই অগ্রসর হতে সাহস পেত না। অটুট শৃংখলা সম্পন্ন এ বিশাল […]

READ MORE

হযরত লোকমান (আঃ)

বন্ধুরা, তোমরা নিশ্চয়ই হযরত লোকমান (আ.) এর নাম শুনেছো। তিনি ছিলেন প্রাচীন যুগের একজন পণ্ডিত ও  জ্ঞানী ব্যক্তি। তিনি সারা জীবন মানুষকে মূল্যবান উপদেশ দিয়েছেন। তার সময়ে জ্ঞানগরিমা, বুদ্ধিশুদ্ধি, ভালো কথা ও সৎ কাজে তিনি ছিলেন সবার সেরা। আর এ কারণেই নবী না হবার পরও তার নাম পবিত্র কুরআনে উল্লেখ করা হয়েছে। আল্লাহতালা পবিত্র কুরআনে […]

READ MORE

সন্তানের প্রতি নূহ (আঃ)-এর অন্তিম উপদেশ

আব্দুল্লাহ বিন আমর (রাঃ) বলেন, আমরা একদিন রাসূলুল্লাহ (ছাঃ)-এর কাছে বসেছিলাম। এরই মধ্যে একজন লোক আগমন করল যার পরিধানে ছিল মীযান (এক প্রকার মাছ) রংয়ের জুববা। অতঃপর সে রাসূল (ছাঃ)-এর মাথা বরাবর দাঁড়িয়ে বলল, (হে আল্লাহর রাসূল (ছাঃ)! আপনার-সাথী সঙ্গীগণ আরোহীগণকে অবদমিত করছে। বা সে বলল, সে আরোহীগণকে অবদমিত করতে ও রাখালদের ক্ষমতায় অধিষ্ঠিত করতে […]

READ MORE

খিযির ও মূসা (আ.)-এর কাহিনী

হযরত ইবনু আব্বাস (রা.) হ’তে বর্ণিত তিনি বলেন, হযরত উবাই ইবনু কা‘ব (রা.) রাসূলুল্লাহ (ছা.) হ’তে আমাদের নিকট বর্ণনা করেছেন যে, হযরত মূসা (আ.) একদা বনী ইসরাঈলের এক সমাবেশে ভাষণ দিতে দাঁড়ালে তাঁকে জিজ্ঞেস করা হ’ল, কোন্ ব্যক্তি সর্বাধিক জ্ঞানী? তিনি বললেন, আমিই সর্বাধিক জ্ঞানী। জ্ঞানকে আল্লাহ্‌র দিকে সোপর্দ না করার কারণে আল্লাহ তাকে তিরষ্কার […]

READ MORE

মূসা (আঃ)-এর লজ্জাশীলতা

আবু হুরায়রা (রাঃ) বলেন, রাসূলুল্লাহ (ছাঃ) বলেছেন, ‘মূসা (আঃ) ছিলেন খুব লজ্জাশীল ও পর্দানশীন ব্যক্তি। তাঁর লজ্জাশীলতার কারণে তাঁর দেহের কোন অংশ দেখা যেত না। ফলে বনী ইসরাঈলের লোকেরা তাঁকে যা কষ্ট দেয়ার দিল। তারা বলল, তাঁর চামড়ায় কোন দোষ-ত্রুটি থাকার কারণেই তিনি এ পর্দা করছেন। তাঁর চামড়ায় কুষ্ঠরোগ বা তাঁর হার্নিয়া রয়েছে কিংবা সে […]

READ MORE

কওমে লূত-এর ধ্বংসস্থলের বিবরণ

লূত (আঃ) এর পরিচয় জানতে এখানে ক্লিক করুন ধ্বংসস্থলের বিবরণ কওমে লূত-এর বর্ণিত ধ্বংসস্থলটি বর্তমানে ‘বাহরে মাইয়েত’ বা ‘বাহরে লূত’ অর্থাৎ ‘মৃত সাগর’ বা ‘লূত সাগর’ নামে খ্যাত। যা ফিলিস্তীন ও জর্ডান নদীর মধ্যবর্তী অঞ্চলে বিশাল অঞ্চল জুড়ে নদীর রূপ ধারণ করে আছে।  যেটি সমুদ্র পৃষ্ঠ থেকে বেশ নীচু। এর পানিতে তৈলজাতীয় পদার্থ বেশী। এতে […]

READ MORE

লূত (আঃ) এর কওমের উপর গযবের বিবরণ

কওমে লূত-এর ধ্বংসস্থলের বিবরণ জানতে এখানে ক্লিক করুন আল্লাহর হুকুমে কয়েকজন ফেরেশতা মানুষের রূপ ধারণ করে প্রথমে হযরত ইবরাহীমের বাড়ীতে পদার্পণ করলেন। তিনি তাদেরকে মেহমানদারীর জন্য একটা আস্ত বাছুর গরু যবেহ করে ভুনা করে তাদের সামনে পরিবেশন করলেন। কিন্তু তারা তাতে হাত দিলেন না। এতে ইবরাহীম (আঃ) ভয় পেয়ে গেলেন (হূদ ১১/৬৯-৭০)। কেননা এটা ঐ […]

READ MORE

লূত (আঃ)-এর দাওয়াতের কাহিনী

লূত (আঃ) এর কওমের উপর গযবের বিবরণ জানতে এখানে ক্লিক করুন লূত (আঃ)-এর কওম আল্লাহর ইবাদত ছেড়ে শিরক ও কুফরীতে লিপ্ত হয়েছিল। দুনিয়াবী উন্নতির চরম শিখরে উন্নীত হওয়ার কারণে তারা সীমা লঙ্ঘনকারী জাতিতে পরিণত হয়েছিল। পূর্বেকার ধ্বংসপ্রাপ্ত জাতিগুলির ন্যায় তারা চূড়ান্ত বিলাস-ব্যসনে গা ভাসিয়ে দিয়েছিল। অন্যায়-অনাচার ও নানাবিধ দুষ্কর্ম তাদের মজ্জাগত অভ্যাসে পরিণত হয়ে গিয়েছিল। […]

READ MORE

রাসূল আমার আলোর জ্যোতি।। ১ম অংশ

দ্বিতীয় অংশ পড়তে এখানে ক্লিক করুন আমাদের প্রিয় নবী ‍মুহাম্মদুর রাসূলুল্লাহ (সা)। জন্মগ্রহণ করেন মরুভূমির দেশ-আরবের মক্কা নগরে। সময়টি ছিল ৫৭০ খ্রিস্টাব্দের ২০শে এপ্রিল, ১২ই রবিউল আউয়াল। রাসূলের (সা) আগমন সম্পর্কে আল্লাহ পাক আল কুরআনে বলেন, ‘সৃষ্টি জগতের রহমতস্বরূপ তোমাকে রাসূল করে পাঠিয়েছি।’ সূরা আল আযহাবে আরও বলা হয়েছে:” ‘হে নবী! তোমাকে সাক্ষ্যদানকারী, সুসংবাদ দানকারী […]

READ MORE

গজবের ঘূর্ণি।। ২য় অংশ

প্রথম অংশ পড়তে এখানে ক্লিক করুন তারা কোনো কিছুই পরোয়া করতো না। তারা এক আল্লাহর ইবাদাত ছেড়ে পূজা করতে কল্পিত দেবতার। শিরক, বিদআত আর অন্যায়ের সয়লাবে তারা ভেসে চলছিল। ভেসে গেল তাদের মানবতাবোধ, সুনীতি, ইনসাফ, দয়ামায়া কিংবা ভ্রাতৃত্ববোধ। এক আল্লাহর আনুগত্য বাদ দিয়ে তারা মানবতাহীন জুলুম অত্যাচারে মেতে ‍উঠলো। তারা এতটুকুও কান দিল না আল্লাহর […]

READ MORE
Skip to toolbar