Menu

শরীর থেকে আত্মা আলাদা হওয়ার পরে তা আবার কিভাবে উক্ত শরীরকে চিনে?

রূহ শরীর থেকে আলাদা হওয়ার পরে তা শরীর থেকে এমন এক আকৃতি (প্রতিচ্ছবি) নিয়ে যায় যা উক্ত শরীররে সাথেই নির্দিষ্ট হয়ে যায়, অন্য শরীরের সাথে মিলিত হবে না। কেননা সে তার শরীর দ্বারা প্রভাবিত হয়ে যায় এবং শরীরে ফিরে আসে, যেভাবে শরীর তার রূহ দ্বারা প্রভাবিত হয়ে এবং রূহের কাছে ফিরে আসে। \ফলে ভালো শরীর […]

READ MORE

রূহ কি মারা যায়, নাকি শুধু শরীর মারা যায়?

আত্মার মৃত্যু হলো শরীর থেকে আলাদা হওয়া ও বের হয়ে যাওয়া। এ হিসেবে মৃত্যু ধরা হলে নিঃসন্দেহে বলা যায় যে, আত্মা মৃত্যুর স্বাদ গ্রহণকারী। আর যদি বলা হয় যে, আত্মা মরে যায় বলতে তা বিলীন হয়ে যায়, একেবারেই ধ্বংস হয়ে যায়, নিঃশেষ হয়ে যায়, তাহলে বলা হবে, এ দৃষ্টিকোণে আত্মা মারা যায় না; বরং তা […]

READ MORE

কবরে প্রশ্ন-উত্তরের সময় কি মৃত ব্যক্তির রূহ ফেরত দেওয়া হয়?

বারা ইবন ‘আযিব রাদিয়াল্লাহু ‘আনহু থেকে বর্ণিত সহীহ হাদীসে এসেছে, “আমরা রাসূলুল্লাহ্ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লামের সাথে একজন আনসারী সাহাবীর জানাযায় শরীক হই, এমনকি তার কবরের কাছে যাই, যা তখনও খোড়া হয় নি। তখন রাসূলুল্লাহ্ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম সেখানে বসলেন এবং আমরাও তাঁর সাথে তাঁর চারদিকে (শান্তভাবে) বসে পড়ি, যেন আমাদের মাথার উপর পাখী বসা। এ […]

READ MORE

রূহ কি জীবিত ও মৃত উভয় ধরণের মানুষের রূহের সাথে মিলিত হয়?

হ্যাঁ, রূহ জীবিত ও মৃত মানুষের রূহের সাথে সাক্ষাৎ করে ও মিলিত হয়, যেভাবে রূহ মৃত ব্যক্তির রূহের সাথে মিলিত হয় ও সাক্ষাৎ করে। আল্লাহ তা‘আলা বলেছেন, ﴿ٱللَّهُ يَتَوَفَّى ٱلۡأَنفُسَ حِينَ مَوۡتِهَا وَٱلَّتِي لَمۡ تَمُتۡ فِي مَنَامِهَاۖ فَيُمۡسِكُ ٱلَّتِي قَضَىٰ عَلَيۡهَا ٱلۡمَوۡتَ وَيُرۡسِلُ ٱلۡأُخۡرَىٰٓ إِلَىٰٓ أَجَلٖ مُّسَمًّىۚ إِنَّ فِي ذَٰلِكَ لَأٓيَٰتٖ لِّقَوۡمٖ يَتَفَكَّرُونَ٤٢﴾ [الزمر: ٤١] […]

READ MORE

মৃত ব্যক্তিদের রূহ কি পরম্পর মিলিত হয়, পরম্পর সাক্ষাৎ করে ও কথাবার্তা বলে?

রূহ দু’প্রকার: ১- ‘আযাবপ্রাপ্ত রূহ – আল্লাহর কাছে পানাহ চাচ্ছি- এ ধরণের রূহ শাস্তি ভোগের কারণে ব্যস্ত থাকবে বলে পরস্পর দেখা সাক্ষাৎ ও মিলিত হওয়া থেকে বিরত থাকবে। ২- নি‘আমতপ্রাপ্ত রূহ। এসব রূহ বিচরণকারী হবে, এরা আবদ্ধ থাকবে না। তারা পরস্পর মিলিত হয়ে দুনিয়া ও দুনিয়ায় বসবাসকারীদের ব্যাপারে কথাবার্তা বলবেন এবং নিজেরা নিজেদের পরিচিতদের সাথে […]

READ MORE

মৃতব্যক্তি কি জীবিত ব্যক্তির যিয়ারত ও সালাম বুঝতে পারে?

রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম বলেছেন, «ما من مسلم يمر بقبر أخيه كان يعرفه في الدنيا فَيُسَلم عليه، إلا رد الله عليه روحه، حتى يرد عليه السلام». “যখন কোনো মুসলিম ব্যক্তি দুনিয়াতে পরিচিত তার কোনো মৃত্যু ভাইয়ের কবরের পাশ দিয়ে গমন করে এবং তাকে সালাম দিলে তখন তার সালামের উত্তর দেওয়ার জন্য আল্লাহ তার রূহকে ফেরত […]

READ MORE

শিশুরা কি কবরে জিজ্ঞাসিত হবে?

না, শিশুরা কবরে জিজ্ঞাসিত হবে না। কেননা যাদের রাসূল ও রাসূলের আনিত জিনিস সম্পর্কে জ্ঞান আছে তাদেরকে প্রশ্ন করা হবে। ফলে তাদেরকে জিজ্ঞেস করা হবে, তারা কি রাসূলের অনুসরণ করেছে, নাকি তার বিরুদ্ধাচরণ করেছে? পক্ষান্তরে শিশু ভালো-মন্দ কিছুই পার্থক্য করতে পারে না, তাহলে তাদেরকে কীভাবে জিজ্ঞেস করা হবে? অন্য দিকে আবু হুরায়রা রাদিয়াল্লাহু ‘আনহু থেকে […]

READ MORE

কবরের ‘আযাব কি সর্বদা চলতে থাকবে নাকি তা মাঝে মাঝে হবে?

কবরের ‘আযাব দু’ধরণের। ১- সার্বক্ষণিক ‘আযাব। এর প্রমাণ আল্লাহ তা‘আলার বাণী, ﴿ٱلنَّارُ يُعۡرَضُونَ عَلَيۡهَا غُدُوّٗا وَعَشِيّٗا٤٦﴾ [غافر: ٤٦] “আগুন, তাদেরকে সকাল-সন্ধ্যায় তার সামনে উপস্থিত করা হয়।” [সূরা গাফের, আয়াত: ৪৬] সামুরা রাদিয়াল্লাহু ‘আনহু থেকে বর্ণিত, রাসূলুল্লাহ্ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম কবরে ‘আযাবপ্রাপ্ত ব্যক্তি সম্পর্কে বলেছেন, «فهو يُفْعَلُ بِهِ إِلَى يَوْمِ القِيَامَةِ». “তার সাথে এভাবে কিয়ামত পর্যন্ত […]

READ MORE

ছাত্রের প্রেমে ওস্তাদ-শেখ সাদির গল্প

এক ওস্তাদজী এক মক্তবে শিক্ষকতা করতেন। অনেক কোমলমতি ছাত্র-ছাত্রী তার কাছে পড়াশুনা করত। তাদের মাঝে এক ছাত্র ছিল সর্বাঙ্গ সুন্দর। তার বাইরের রুপলাবন্য ছিল যেমন সদ্য ফোটা গোলাপ ফুলের মত সুন্দর, ভেতরের মনটাও ছিল তেমনি ফেরেশতার মতো নির্মল ও পবিত্র। অধকন্তু তার কন্ঠস্বর ছিল অত্যন্ত মধুর। অপূর্ব সৌন্দর্য সুষমায় অল্পদিনেই সে ওস্তাদের হৃদয়-মন মুগ্ধ করে […]

READ MORE

সূরা ফাতিহা আমলের বরকত

আল্লাহ রাব্বুল আলামিন মানবজাতিকে দান করেছেন শ্রেষ্ঠগ্রন্থ কুরআন। কুরআনে রয়েছে মানুষের জন্ম থেকে মৃত্যু পর্যন্ত সব সমস্যার সমাধান। জাগো নিউজের পাঠকদের জন্য রোগ-ব্যধি থেকে মুক্তির আমল তুলে ধরা হলো- আ’মালুল কুরআন সূরা আল ফাতিহা সর্ব রোগের মহৌষধ। এ সূরার আমলের ব্যাপারে হাদিসের নির্দেশণা রয়েছে। এ সূরার আমলের বরকত লাভের কিছু নিয়ম রয়েছে। কিভাবে এ আমল […]

READ MORE

কুরআনে জাহান্নামের আজাব থেকে মুক্তি লাভের দোয়া

আল্লাহ তাআলার অসংখ্য কুদরত ও নিদর্শনে ভরা এ সৃষ্টি জগত। যা নিয়ে সামান্য চিন্তা-ভাবনা করলেই তা অনুমিত হয়। আর এ সব সৃষ্টির বিষয়ে চিন্তা ভাবনায় বান্দার প্রতি আল্লাহ তাআলা সন্তুষ্ট হন। যাতে আল্লাহ তাআলার অনেক হিকমত রয়েছে। সৃষ্টি সম্পর্কে চিন্তা ও গবেষণা মানুষকে অন্যায় পথ পরিহারে অনুপ্রাণিত করে। তারপরও মানুষ ইচ্ছা-অনিচ্ছায় আল্লাহর বিধান লংঘন করে […]

READ MORE

রাগ দমনে বিশ্বনবির উপদেশ

ক্রোধ বা রাগ মানুষের জন্য বহু অনিষ্টের কারণ। রাগের ফলে মানুষের শারীরিক ও মানসিক সমস্যা হয় আবার এ রাগই মানুষকে জাহান্নামের ইন্ধনে পরিণত করে দেয়। রাগ এমন এক জিনিস; যা নিয়ন্ত্রণ করা অত্যন্ত কঠিন কাজ। এ জন্য রাগ বা ক্রোধ নিয়ন্ত্রণকারীকে হাদিসে বীর পুরুষ বলে আখ্যায়িত করা হয়েছে। রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম ইরশাদ করেন, […]

READ MORE

আল্লাহর অনুগ্রহ লাভের আমল

আল্লাহ তাআলা বান্দাকে তাঁর সুন্দর সুন্দর নামের জিকির বা আমল করার কথা বলেছেন। রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম হাদিসে আলাদা আলাদাভাবে এ নামগুলোর আমল করার ব্যাপারে তাগিদ দিয়েছেন। আল্লাহর গুণবাচক সব নামের আমলে রয়েছে গুরুত্বপূর্ণ ফজিলত। (اَلْبَصِيْرُ) ‘আল-বাসিরু’ আল্লাহ তাআলার গুণবাচক নামসমূহের একটি। যার অর্থ হলো- ‘দ্রষ্টা; যিনি সব কিছু দেখেন’ আল্লাহর গুণবাচক নাম (اَلْبَصِيْرُ) […]

READ MORE

নির্জনে বাস করার উপায়-শেখ সাদির গল্প

এক মুরীদ তার পীরের কাছে দুঃখ প্রকাশ করে বলেছিলঃ হুজুর লোকজনের হুকুমে বড় পেরেশানীর মধ্যে আছি। লোকজন এতবেশি আমার কাছে যাতায়াত করে যে, তাদের তাড়নায় সর্বদা অস্থির থাকতে হয়। নিরালায় ইবাদত করার ফুরসুতই পাই না। কি করি? পীর সাহেব পরামর্শ দিলেনঃ বাবা গরীব লোক যারা আসে, তাদেরকে কিছু কিছু কর্জ দিও। আর ধনী যারা আসে, […]

READ MORE

কবর জিয়ারতের নিয়ম

বিভিন্ন হাদিস থেকে জানা যায়, রাসূল (সা.) প্রায় সময়ই শেষ রাতে কবর জিয়ারত করতেন। তাই সম্ভব হলে শেষ রাতে কবর জিয়ারত করা উত্তম। কেননা মন তখন অধিক নরম থাকে। তাছাড়া অন্য সময়ও কবর জিয়ারত করা রাসূল (সা.) থেকে প্রমাণিত। অধিকাংশ আলেমের মতে, জুতা-স্যান্ডেল পায়ে রেখে কবরের কাছে যাওয়া যায়। তবে ইমাম আহমদের মতে, প্রয়োজন না […]

READ MORE

আল কোরআন পাঠের মর্ত্যবা সম্পর্কিত হাদিস

রাসূল (সা.) এরশাদ করেন, ‘যে হৃদয়ে আল কোরআনের কোনো অংশ নেই, সে হৃদয় বিরান গৃহের ন্যায়।’ কুরআন শিক্ষা করা, মুখস্থ করা ও তাতে দক্ষতা লাভ করার ফজিলত : নবী করীম (সা.) বলেন, যে ব্যক্তি কুরআন পাঠ করবে এবং তা মুখস্থ করবে এবং (বিধি-বিধানের) প্রতি যত্নবান হবে, সে উচ্চ-সম্মানিত ফেরেশতাদের সাথে অবস্থান করবে। আর যে ব্যক্তি […]

READ MORE

জান্নাতুল ফেরদাউসের বর্ণনা

জান্নাতুল ফেরদাউসকে আল্লাহতা’য়ালা নিজ কুদরতী হাতে তৈরী করেছেন । তার দরজা সবচেয়ে উচু দরজা অর্থাৎ সব থেকে উচু মর্যাদা । সকল ঈমানদার-ই জান্নাতে প্রবেশ করবে । সকল জান্নাতকে আল্লাহ তায়ালা ‘কুন অর্থাৎ হও’ দিয়ে তৈরী করেছেন । শুধু এক জান্নাত তৈরী করেছেন নিজ কুদরতের দ্বারা । ঐ জান্নাতের নাম দিয়েছেন জান্নাতের ফেরদাউস । ঐ জান্নাত […]

READ MORE

পেট ফাঁপার চিকিৎসা- এক আলেমের গল্প

পূর্বকালে বাদশাহর দরবারে আলেমদের খুব কদর ছিলো। এক বাদশাহ্ দ্বীনি বিষয় নিয়ে তার দরবারে এক আলেমের সঙ্গে আলোচনা করছিলেন। এমন সময় এক ব্যাক্তি একটি শিশুকে নিয়ে এসে সেই আলেমের খিদমতে আরজ করলোঃ “হুজুর আমার এই ছেলেটির পেট ফেঁপেছে, ব্যাথায় খুব কষ্ট পাচ্ছে। দয়া করে কিছু করুন যেন আল্লাহ পাক আরোগ্য দান করেন।” : উক্ত বুযুর্গ […]

READ MORE

কুরআনের সংরক্ষণ ও একজন ইহুদী পন্ডিতের ইসলাম গ্রহণ

আববাসীয় খলীফা মামূনুর রশীদের দরবারে মাঝে মাঝে শিক্ষা সম্পর্কিত বিভিন্ন বিষয়ে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হ’ত। এতে তৎকালীন বিভিন্ন বিষয়ে বিদগ্ধ পন্ডিতগণ অংশগ্রহণ করতেন। একদিন এমনি এক আলোচনা সভায় সুন্দর চেহারাধারী, সুগন্ধযুক্ত উত্তম পোষাক পরিহিত জনৈক ইহুদী পন্ডিত আগমন করলেন এবং অত্যন্ত প্রাঞ্জল, অলংকারপূর্ণ এবং জ্ঞানগর্ভ আলোচনা রাখলেন। বিস্মিত খলীফা সভা শেষে তাকে ডেকে জিজ্ঞেস করলেন, […]

READ MORE

মহামারী আক্রান্ত এলাকায় যাওয়া সম্পর্কে ইসলামের বিধান

প্লেগ, বসন্ত প্রভৃতি মহামারী আক্রান্ত অঞ্চলে গমন করা এবং দুর্গত এলাকায় অবস্থান করলে সেখান থেকে বের হয়ে আসা নিষেধ। এ সম্পর্কেই নিম্নোক্ত হাদীছ- ইবনে আববাস (রাঃ) হ’তে বর্ণিত, একদা ওমর ইবনুল খাত্ত্বাব (রাঃ) সিরিয়ার দিকে যাত্রা করলেন। অতঃপর যখন তিনি ‘সার্গ’ (সউদিয়া ও সিরিয়ার সীমান্ত) এলাকায় গেলেন, তখন তাঁর সাথে সেনাবাহিনীর প্রধানগণ- আবু ওবায়দাহ ইবনুল […]

READ MORE

সৃষ্টজীবের প্রতি দয়া

ইবনু ওমর (রাঃ) সূত্রে নবী (ছাঃ) হ’তে বর্ণিত। তিনি বলেন, এক নারী একটি বিড়ালের কারণে জাহান্নামে গিয়েছিল, সে তাকে বেঁধে রেখেছিল। সে তাকে খাবারও দেয়নি, ছেড়েও দেয়নি, যাতে সে যমীনের পোকা-মাকড় খেতে পারত (বুখারী হা/৩৩১৮ ‘সৃষ্টির সূচনা’ অধ্যায়, অনুচ্ছেদ-১১, মুসলিম, মিশকাত হা/১৯০৩)। আবূ হুরায়রা (রাঃ) সূত্রে আল্লাহর রাসূল (ছাঃ) হ’তে বর্ণিত। তিনি বলেন, ‘এক ব্যভিচারিণীকে […]

READ MORE

‘মাছি’ নিয়ে হাদীছ মানলো বিজ্ঞান

প্রায় ১৪০০ বছর আগে নাযিল হওয়া আল-কুরআনের বিশ্লেষণ করে মানুষ মঙ্গল গ্রহ পর্যন্ত পৌঁছেছে। মহানবী হযরত মুহাম্মাদ (ছাঃ) ১৪০০ বছর আগে মাছি প্রসঙ্গে যে কথাটি বলেছিলেন, তা আমাদের আধুনিক বিজ্ঞানও মেনে নিয়েছে। ছহীহ বুখারীর হাদীছে রাসূল (ছাঃ) বলেছেন, ‘যদি তোমাদের কারো পাত্রে মাছি পতিত হয়, সে যেন উক্ত মাছিটিকে ডুবিয়ে দেয়’ (বুখারী হা/৫৭৮২)। এ বিষয়ে […]

READ MORE
Skip to toolbar