Menu

আল কোরআনের স্বান্তনা মূলক বানী

✿ আমি আল্লাহকে বলি আমি নিজের উপর জুলুম করেছি – আল্লাহ বলেন – “…হে আমার বান্দাগণ যারা নিজেদের উপর যুলুম করেছ তোমরা আল্লাহর রহমত থেকে নিরাশ হয়ো না।…” [সূরা আল-যুমার -৫৩] ✿ আমি আল্লাহকে আমার অন্তরের অশান্তির কথা বলি – আল্লাহ বলেন – “…আল্লাহর যিকির দ্বারা শান্তি লাভ করে; জেনে রাখ, আল্লাহর যিকির দ্বারাই অন্তর […]

READ MORE

আমি ঠকিনি বন্ধু

মক্কার ধনী উমাইয়া।ধনে-মনে সব দিক দিয়েই কুরাইশদের একজন প্রধান ব্যক্তি সে। প্রাচুর্যের যেমন তার শেষ নেই, ইসলাম বিদ্বেষেও তা কোন জুড়ি নেই। শিশু ইসলামকে ধ্বংসের কোন চেষ্টারই সে কোন ত্রুটি করে না। এই ঘোরতর ইসলাম বৈরী উমাইয়ার একজন ক্রীতদাস ইসলাম গ্রহন করেছে। তা জানতে পারল উমাইয়া। জানতে পেরে ক্রোধে ফেটে পড়লো সে। অকথ্য নির্যাতন সে […]

READ MORE

হযরত আবুবকর (রাঃ)-এর গোপন আমল

প্রথম খলীফা আবুবকর (রাঃ) ফজরের ছালাত আদায় করে মরুভূমির দিকে গমন করতেন এবং সেখানে কিছুক্ষণ অবস্থান করে শহরে ফিরে আসতেন। ওমর (রাঃ) তার প্রত্যহ এরূপ গমনের দৃশ্য দেখে আশ্চর্যান্বিত হ’লেন। তাই একদিন ফজরের ছালাতের পর আবুবকর (রাঃ) যখন বের হ’লেন, তখন তিনি গোপনে তাঁকে অনুসরণ করতে লাগলেন। অতঃপর তিনি একটি টিলার পিছনে লুকিয়ে থাকলেন ও […]

READ MORE

আমরা ধর্ষণ চাই না, কিন্তু ধর্ষক বানাই

১। একটা মেয়েকে একটা ছেলে অশালীন কাপড় পরার জন্য ধর্ষণ করেছে নাকি করে নাই –এটা আমার কাছে খুবই অস্বস্তিকর একটা “shallow” আলোচনা মনে হয়েছে। যদি বলা হয়, অশালীন পোষাকই দায়ী, তাহলে ধর্ষক কিছুটা জাস্টিফিকেশন পেয়ে যায়। আবার যদি বলা হয়, “অশালীন পোষাক দায়ী নয়”, সেক্ষেত্রেও মনে হওয়ার কথা, “মানুষ কি ধ্বজ নাকি?”। মানুষের মধ্যে পশুবৃত্তি […]

READ MORE

হযরত আবদুল্লাহ ইবন মাসউদ (রা) এর জিবনী ।। (২য় অংশ)

প্রথম অংশ পড়তে এখানে ক্লিক করুন ‘আবদুল্লাহ ইবন মাসউদ।’ জ্বলন্ত আগুনে পানি ঢেলে দিলে যে অবস্থা হয়, ইবন মাসউদের নাম শুনে তাঁরও সে অবস্থা হলো। তাঁর রাগ পড়ে গেল। তিনি স্বাভাবিক অবস্তা ফিরে পেলেন। তারপর বললেনঃ তোমার ধ্বংস হোক! আল্লাহর কসম, এ কাজের জন্য তাঁর চেয়ে অধিক যোগ্য কোন ব্যক্তি বেঁচে আছে কিনা আমি জানিনা। […]

READ MORE

হযরত আবদুল্লাহ ইবন মাসউদ (রা) এর জিবনী।। (১ম অংশ)

দ্বিতীয় অংশ পড়তে এখানে ক্লিক করুন রাসূলুল্লাহ সা. আবদুল্লাহ ইবনে মাসউদ রা. সম্পর্কে বলেছেনঃ ‘যে ব্যক্তি বিশুদ্ধভাবে কুরআন পাঠ করে আনন্দ পেতে চায়, যেমন তা অবতীর্ণ হয়েছে- সে যেন ইবন উম্মু আবদের পাঠের অনুসরণে কুরআন পাঠ করে।’ এটা সেই সময়ের কথা যখন তিনি একজন কিশোর মাত্র, তখনও যৌবনে পদার্পণ করেননি। কুরাইশ গোত্রের এক সর্দার ’উকবা […]

READ MORE

আপনারা কি জানেন, আমাদের এ ভারতবর্ষ থেকেও রাসূলুল্লাহ (স) এর একজন সাহাবী ছিলেন?

আপনারা কি জানেন, আমাদের এ ভারতবর্ষ থেকেও রাসূলুল্লাহ (স) এর একজন সাহাবী ছিলেন? উনার নাম তাজউদ্দিন (রা)। উনার ইসলাম গ্রহণের গল্পটাও খুব চমকপ্রদ। আজ সে কাহিনীই লিখব। দক্ষিণ ভারতের কেরালা রাজ্যের চেরা রাজবংশের শাসকদের রাজ উপাধি হচ্ছে চেরামান পেরুমল।এই রাজবংশেরই শেষ রাজা পরিবর্তীতে হয়েছিলেন একজন সাহাবী। তখনকার সময়ে জোছনাযাপন বা বসে বসে আকাশের দিকে তাকিয়ে […]

READ MORE

আনসারদের মধ্যে ইসলামের সূচনা

জাহিলী যুগে মক্কার সাথে আনসারদের যোগাযোগ ছিল হজ্জ, ’উমরাহ, ব্যবসা-বাণিজ্য ইত্যাদি উপলক্ষে তাঁরা মক্কায় আসতেন। নিজেদের গৃহযুদ্ধ এবং ইহুদীদের শত্রুতার কারণে তাঁরা মক্কার সমর্থন ও সাহায্য লাভের আশায় সেখানে আসতেন। এ ছাড়া বিভিন্ন কারণে আউস ও খাযরাজ গোত্রের লোকদের মক্কাবাসীদের সাথে ঘনিষ্ঠ যোগাযোগ ছিল। মক্কা ও মদীনার লোকদের মধ্যে আত্মীয়তার সম্পর্ক ও মৈত্রী চুক্তিও ছিল। […]

READ MORE

আনসারদের প্রাচীন ধর্মবিশ্বাস

আনসারগণ যদি নাবিত ইবন ইসমা’ঈলের বংশধর হন তাহলে আদিতে তাদের ধর্মবিশ্বাসও তাই ছিল, যা ইসমা’ঈল আ. ও তাঁর সন্তানদের ছিল। পরবর্তীকালে ’আমর ইবন লুহাই যখন আরবে মূর্তিপূজার প্রচলন করে তখন অন্য ইসমা’ঈলীদের মত তারাও মূর্তিপূজা শুরু করে। আনসারদের পূর্বপুরুষের ইয়ামান অবস্থানকালের ধর্মবিশ্বাস সম্পর্কে তেমন কোন তথ্য পাওয়া যায় না। তবে ইয়াসরিবে বসবাসের পর থেকে তাদের […]

READ MORE

নতুন করে বাঁচার স্বপ্ন ( অনুপ্রেরণার-গল্প)

একটি গাছে অনেক পাতা থাকে। অসংখ্য সবুজ পাতা গাছের সৌন্দর্য বাড়িয়ে তোলে। সেই সৌন্দর্য দেখে সবাই মুগ্ধ হয়। তবে অসংখ্য সবুজ পাতার মাঝে অনেক পাতাই মাঝে মাঝে শুকিয়ে যায়। একসময় সেই শুকনো পাতাগুলো গাছ থেকে ঝরে মাটিতে পড়ে যায়। তখন সেই ঝরা পাতাকে কেউ আর মূল্য দেয় না। মানুষের জীবনও একটা গাছের মতো। এই গাছেও […]

READ MORE

আনাস ইবন মালিক (রা)।। ৩য় অংশ

প্রথম অংশ পড়তে এখানে ক্লিক করুন উল্লেখিত আলোচনা থেকে আমরা দেখতে পেলাম হযরত আনাস কেমন সঠিক সিদ্ধান্তের অধিকারী ছিলেন। তাঁর ইজতিহাদী মাসয়ালার বিশেষ বৈশিষ্ট্য এই যে, তা অন্যান্য সাহাবার ইজতিহাদের সাথে অধিকাংশ ক্ষেত্রে সামঞ্জস্যপূর্ণ। এজন্য তা সঠিক। (দ্রঃ সীয়ারে আনসার- ১/১৩৭-১৪২) হযরত আনাসের চারটি বিশেষ বৈশিষ্ট্য তাঁর চারিত্রিক সৌন্দর্যকে আরও শোভা দান করেছিল, হুব্বে রাসূল, […]

READ MORE

আনাস ইবন মালিক (রা)।। ২য় অংশ

তৃতীয় অংশ পড়তে এখানে ক্লিক করুন আমরা আগেই বলেছি, আনাসের কল্যাণময়ী মা সম্পর্কে রাসূলুল্লাহর সা. খালা। তিনি অন্তর দিয়ে তাঁকে ভালোবাসতেন, ভক্তি-শ্রদ্ধা করতেন। আর রাসূলও সা. তাঁর কথা কখনও বিস্মৃত হননি। এই সম্মানিত মহিলাকে রাসূল সা. জান্নাতের সুসংবাদ দান করেছেন। (দায়িরা-ই-মা’য়ারিফ ইসলামিয়্যা (উর্দু)- ৩/৪০২) খাইবার যুদ্ধে হযরত সাফিয়্যা রা. বন্দী হলেন এবং রাসুল সা. তাঁকে […]

READ MORE

আনাস ইবন মালিক (রা)।। ১ম অংশ

দ্বিতীয় অংশ পড়তে এখানে ক্লিক করুন আনাস ইবন মালিক ছিলেন বিখ্যাত সাহাবী, খাদিমে রাসূল, ইমাম, মুফতী, মু’য়াল্লিমে কুরআন, মুহাদ্দিস, খ্যাতিমান রাবী, আনসারী, খাযরাজী ও মাদানী। কুনিয়াত আবু সুমামা ও আবু হামযা। খাদিমু রাসূলিল্লাহ লকব বা উপাধি। (দায়িরা-ই-মা’য়ারিফ ইসলামিয়া- ৩/৪০২, তাজকিরাতুল হুফ্ফাজ- ১/৪৪) আনাস বলতেনঃ আমি ‘হামযা’ নামক এক প্রকার সব্জী খুটতাম, তাই দেখে রাসুল সা. […]

READ MORE

আদমের অবতরণ স্থল

আদম ও হাওয়াকে আসমানে অবস্থিত জান্নাত থেকে নামিয়ে দুনিয়ায় কোথায় রাখা হয়েছিল, সে বিষয়ে মতভেদ রয়েছে। যেমন বলা হয়েছে আদমকে সরনদীপে (শ্রীলংকা) ও হাওয়াকে জেদ্দায় (সঊদী আরব) এবং ইবলীসকে বছরায় (ইরাক) ও ইবলাসের জান্নাতে ঢোকার কথিত বাহন সাপকে ইস্ফাহানে (ইরান) নামিয়ে দেওয়া হয়েছিল। কেউ বলেছেন, আদমকে মক্কার ছাফা পাহাড়ে এবং হাওয়াকে মারওয়া পাহাড়ে নামানো হয়েছিল। […]

READ MORE

আদি মানব ও আজাযিল

পৃথিবী সৃষ্টির একেবারে প্রথশ দিকের কথা। তখন এখানে কোন জীবজন্তু, পশুপক্ষী বা কীটপতঙ্গ কিছুই ছিল না। সমস্ত দুনিয়ায় বাস করতো শুধু জিনেরা। তারা কেবলই নিজেদের মধ্যে ঝগড়াঝাটি, মারামার নিয়েই থাকতো, ভুলেও কখনো আল্লাহ তা’লাকে স্মরণ করতো না। একদিন আজাযিল খোদার দরগায় আরজ (প্রার্থনা) করলোঃ হে প্রভু, আমাকে হুকুম দাও, আমি দুনিয়ায় গিয়ে জিনবংশ গারত (ধ্বংস) […]

READ MORE

আতর ব্যবহারের সুন্নাত তরীকা

ইসলাম একটি সুন্দর ও পবিত্র ধর্ম। পবিত্রতাকে ঈমানের অঙ্গ বলা হয়েছে। নবী হযরত মুহাম্মদ (সাঃ) আতর ব্যবহার করতেন। আমরাও আতর ব্যবহার করবো। আসুন জেনে নেই আতর ব্যবহারের সুন্নত তরীকাঃ সব সময় আতর ব্যবহার করা। বিশেষ করে দুই ঈদের দিনে এবং জুমু’আর দিনে আতর লাগানো। মৃত ব্যক্তিকে কাফন পরিধান করানোর সময় আতর দেওয়া। কোন মজলিসে শরীক […]

READ MORE

আতঙ্কের ফল

গ্রামের একটি ছেলে আঙুরখেতে ঢুকেছিল আঙুর চুরি করার জন্য। সে আঙুর খেতে বড় ভালবাসে। এখানে এই বাগানে কিন্তু কেবল ভাল জাতের আঙুর ফল পাওয়া যায়। ক্ষেতের মালিক দূর থেকে দেখতে পেয়ে হাঁক দিলেন, ‘এই কে রে? কী করছিস ওখানে? এদিকে আয় আমার সামনে।’ ছেলেটি ঘাবড়ে গিয়ে বলল,‘আজ্ঞে ইয়ে ভীষণ পায়খানা পেয়েছিল, তাই পায়খানা করতে এসেছিলাম। […]

READ MORE

আইনের চোখে সবাই সমান

হজ্জ করবার সময় ভিড়ের মধ্যে আরবের পার্শ্ববর্তী এক রাজার চাদর এক দাসের পায়ে জড়িয়ে যায়। বিরক্ত ও ক্রুদ্ধ হয়ে রাজা জাবালা সেই দাসের গালে চড় বসিয়ে দিলেন। লোকটি খলীফা উমর (রা)-এর নিকট সুবিচার প্রার্থনা করে নালিশ করে। জাবালাকে তৎক্ষনাৎ ডেকে পাঠানো হলো। অভিযোগ সত্য কিনা জিজ্ঞাসা করায় জাবালা রূঢ় ভাষায় উত্তর দিলেন, “অভিযোগ সত্য। এই […]

READ MORE

অভাববোধ করলে আল্লাহকেই বলব

তাপসী রাবেয়া বসরী ছিলেন পরিপূর্ণ সন্তুষ্ট হৃদয়। তাঁর এ সন্তুষ্ট হৃদয়ে কোন অভাব বোধ ছিল না, তাই ছিলনা কোন অভিযোগও। চাইবারও ছিলেনা কারও কাছে কিছু তাঁর। হযরত রাবেয়াকে অনেক সময়ই ছিন্ন বসনে দেখা যেত। একদিন বসরার একজন অভিজাত লোকের এটা হৃদয় স্পর্শ করল। সে বলল, ‘মা, যদি আপনি অনুমতি দেন, তাহলে অনেকেই আছে যারা আপনার […]

READ MORE

অপাত্রে দয়ার পরিনাম- শেখ সাদির গল্প

আরব দেশের একদল দুর্ধর্ষ দস্যু এক গিরিপথের পাশে ঘাঁটি করে থাকত এবং সুযোগ মত পথিকদের কাফেলা আক্রমণ করে লুটতরাজ করত। আশেপাশের বাসিন্দারাও তাদের আক্রমণ ও অত্যাচার থেকে রেহাই পেত না। ফলে সেই গিরিপথ দিয়ে লোক চলাচল এবং বণিকদের ব্যবসা বন্ধ হবার উপক্রম হলো। স্থানীয় বাসিন্দারাও তাদের ভয়ে সর্বদা ভীত সন্ত্রস্থ থাকত। বাদশার সেনাবাহিনী যথেষ্ট চেষ্টা […]

READ MORE

লোভী জেলের গল্প

এক জেলে নদীতে মাছ ধরার জন্য জাল ফেলল। প্রথমবার জালে কোনো মাছ উঠল না। দ্বিতীয়বার জাল ফেলার পর লাল ও সবুজ রঙের দুটি মাছ উঠল। জেলে তৃতীয়বার জাল ফেলল। এবার তার জালে অদ্ভুত ধবধবে সাদা একধরনের মাছ উঠল। সে এর আগে কখনো এ ধরনের মাছ দেখেনি। মাছটি হাতে পেয়ে জেলে ভাবল, বাজারে এই মাছের চড়া […]

READ MORE

অনুপ্রেরণামূলক বানী

হাল ছাড়বেন না! ভালো কিছু হতে সময় লাগেই… ঠিক যেই মূহুর্তে আমরা আল্লাহকে ভুলে যাই, আমরা আসলে সবকিছুকেই হারিয়ে ফেলি এবং ক্ষতিগ্রস্ত হয়ে যাই। প্রচন্ড কঠিন, দুর্যোগময়, কষ্টকর সময়েও একজনের পক্ষে শান্তি খুঁজে পাওয়া সম্ভব যদি তিনি আল্লাহর দিকে মুখ ফিরিয়ে নিয়ে তার কাছে সাহায্য প্রার্থনা করেন যে মানুষটার সাথে আমরা ভালো হবার প্রতিযোগিতা করতে […]

READ MORE
Skip to toolbar